বরিশাল নিউজ ডেস্ক।। ক্রিকেটপ্রেমীরা চার বছর ধরে অপেক্ষা করেন এই মহাযজ্ঞের। টিভি, অ্যাপস কিংবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, বিশ্বকাপ এলে হুমড়ি খেয়েই খেলা দেখায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন সবাই। দীর্ঘ দেড় মাস ধরে চলা বিশ্বকাপের পর্দা নামছে আজ। এই বিশ্বকাপে আইসিসির অফিশিয়াল সাইট প্রায় ২৬০ কোটি দর্শক টেনেছে!
২২০ টি অঞ্চলে ৪৬টি টিভি বিশ্বকাপের ম্যাচ দেখিয়েছে। গ্রুপ পর্বের সব ম্যাচে প্রায় ৭০কোটির মতো মানুষ টিভির পর্দায় খেলা উপভোগ করেছেন। ইংল্যান্ড-ভারত ম্যাচটি স্কাই স্পোর্টসে দেখেছেন প্রায় ৩.৫ কোটি স্বতন্ত্র দর্শক। ২০০৬ সালের পর ইংল্যান্ডে এক ম্যাচে একসাথে এতজন দর্শক ক্রিকেট খেলা দেখেননি। ভারতের রান তাড়া করার সময়ই শুধু ২ কোটি মানুষ স্কাইয়ের সামনে বসে ছিলেন।
ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি ভারতজুড়ে স্টার স্পোর্টস ও ডিডি স্পোর্টসে দেখেছেন ১৫ কোটি দর্শক। হটস্টার অ্যাপে সেই সংখ্যাটা ছিল প্রায় দুই কোটি। অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড ম্যাচটির সময় অস্ট্রেলিয়ার প্রায় ছয় লাখ মানুষ টিভির সামনে বসে খেলাটি দেখেছেন। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে এই দুই দলের ম্যাচে যে দর্শক সংখ্যা ছিল, এবার সেটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০৪ গুন!
দক্ষিণ আফ্রিকায় ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফির দর্শক সংখ্যার সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে এবারের বিশ্বকাপ। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির চেয়ে দর্শক সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ২৫০ শতাংশ! গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচটিতে বাংলাদেশের রান তাড়া করার সময় টিভির পর্দায় চোখ রেখেছেন ১ কোটি ১৩ লাখ দর্শক।
শুধু খেলা নয়, আইসিসির অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে খেলার ভিডিও দেখেছেন প্রচুর দর্শক। সব মিলিয়ে গ্রুপ পর্বের সময় সাইটে ঢোকা দর্শকের সংখ্যা ছিল ২৬০ কোটির মতো। গত দেড় মাসে ১.২ কোটি নতুন ফলোয়ার পেয়েছে সাইটটি, প্রতিক্রিয়া ছিল ৩৯ কোটিরও বেশি!
সেমিফাইনালে ভারত-নিউজিল্যান্ড ম্যাচটি হটস্টারে দেখেছেন ২.৫ কোটি দর্শক, এটাই এই সাইটে সর্বোচ্চ। আগের রেকর্ডটি ছিল ১.৮ কোটি। ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া সেমিফাইনাল স্কাইয়ে দেখেছে প্রায় পাঁচ লাখ দর্শক, যা এই বিশ্বকাপে স্কাইয়ের তৃতীয় সর্বোচ্চ।
বরিশাল নিউজ/শাওন