বরিশাল নিউজ ডেস্ক।। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে দলের আশানুরুপ ফল না পাওয়ার পরই কোচিং স্টাফ ঢেলে সাজানোর সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। ফল খারাপের প্রতিক্রিয়ায় চাকরি হারান কোচিং হেড স্টিভ রোডস, পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ আর স্পিন বোলিং কোচ সুনিল জোশি।

তবে ব্যাটিং কোচ নেইল ম্যাকেঞ্জির পারফরম্যান্সে অসন্তুষ্ট নয় বিসিবি। তাকে ছেঁটে ফেলা হয়নি। বরং আগামী বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত তার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করবে বোর্ড।
এদিকে হেড কোচ পদের জন্য ইতিমধ্যে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে দেশের ক্রিকেট পরিচালক সংস্থা। আপদকালীন কোচ হিসেবে শ্রীলঙ্কায় দলের সঙ্গে খালেদ মাহমুদ সুজন গেলেও দীর্ঘমেয়াদে কোনো বিদেশি কোচই খুঁজছে বোর্ড। এখনও তেমন কারও বিষয়ে নিশ্চিত সিদ্ধান্ত হয়নি।

তবে বাকি দুই গুরুত্বপূর্ণ পদে কোচ নিয়োগের সিদ্ধান্তটা আজই (শনিবার) সেরে ফেলেছে বিসিবি। নাজমুল হাসান পাপনের সভাপতিত্বে বোর্ডের অন্য পরিচালকদের সঙ্গে নিয়ে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী সভা হয়েছে বিসিবি কার্যালয়ে। সেখানেই নতুন দুই বোলিং কোচের নাম ঘোষণা করা হয়।

পেস বোলিং কোচ পদে নিয়োগ পেয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক পেসার চার্লস ল্যাঙ্গেভেল্ট। তিনি ক্যারিবীয় কোচ কোর্টনি ওয়ালশের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন। ভারতীয় স্পিন বোলিং সুনিল জোশির স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন নিউজিল্যান্ডের কিংবদন্তি স্পিনার ড্যানিয়েল ভেট্টোরি।

তবে ভেট্টোরিকে পূর্ণ মেয়াদে পাচ্ছে না বাংলাদেশ। চলতি বছর ভারত সফরের আগ থেকে শুরু করে ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত মোট ১০০ দিন কাজ করবেন ভেট্টোরি। পরে সুযোগ ও পরিস্থিতি বুঝে দুপক্ষের সমঝোতায় চুক্তির মেয়াদ বাড়ানোও হতে পারে।

স্পিন বোলিং কোচকে পূর্ণ মেয়াদে না পেলেও, পেস বোলিং কোচ ল্যাঙ্গেভেল্টের সঙ্গে দুই বছরের আনুষ্ঠানিক চুক্তি সম্পন্ন করেছে বোর্ড। জাতীয় দল শ্রীলঙ্কা সিরিজ শেষ করে দেশে ফিরলেই দলের সঙ্গে যোগ দেবেন তিনি।

দুই কোচের নিয়োগের ব্যাপারে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘পেস বোলিং কোচ হিসেবে আমরা দক্ষিণ আফ্রিকার চার্লস ল্যাঙ্গেভেল্টকে বেছে নিয়েছি। তার সঙ্গে আনুষ্ঠানিক চুক্তিও হয়ে গেছে। আগামী দুই বছর কাজ করবেন তিনি। তবে ভেট্টোরির সঙ্গে এখনও চুক্তি হয়নি। মৌখিকভাবে তিনি রাজি হয়েছেন কাজ করতে। অচিরেই চুক্তি করা হবে।’

বরিশাল নিউজ/শাওন