ইংলিশ বোলারদের তোপের মুখে ভেঙে পড়ে অজিরা

ইংলিশ বোলারদের তোপের মুখে ভেঙে পড়ে অজিরা

বরিশাল নিউজ ডেস্ক।। হাতে ১০৭ বল রেখে অস্ট্রেলিয়াকে স্বচ্ছন্দে আট উইকেট হারিয়ে ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনালে চলে গেল আয়োজক দেশ ইংল্যান্ড। তারা শেষ বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলেছিল ১৯৯২ সালে। রোদ-ঝলমলে এজব্যাস্টনে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন অস্ট্রেলিয় অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। বিকেলের দিকে বৃষ্টির পূর্বাভাস ছিল, ফলে এই সিদ্ধান্তে কেউই অবাক হননি।

কিন্তু প্রথম সেমিফাইনালে ভারতের মত শুরুতেই শোচনীয় অবস্থা হয় অস্ট্রেলিয়ার। ফিঞ্চ আজ এক বলের বেশি টেকেন নি। দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই তাঁকে এলবিডব্লিউ করে দেন জফ্রা আর্চর।

এরপর ক্রিস ওকস এসে বিপজ্জনক ডেভিড ওয়র্নরকে আউট করে ন। শন মার্শের বদলি হিসেবে দলে জায়গা পেয়ে ২০১৯ বিশ্বকাপে প্রথমবার খেলতে নামেন পিটার হ্যান্ডসকুম্ব। কিন্তু তিনিও ওকসের সামনে বেশিক্ষণ দাঁড়াতে পারেননি। দেখতে দেখতে ৬.১ ওভারে মাত্র ১৪ রানে তিন উইকেট খুইয়ে বসে অস্ট্রেলিয়া।

অ্যালেক্স কেরি এই বিশ্বকাপে বেশ কয়েকটা মূল্যবান ইনিংস খেলেছেন। এদিন স্টিভন স্মিথের (৮৫) সঙ্গে জুটি বেঁধে ১০৩ রান তোলেন তিনি। চোয়ালে বল লাগার পরেও দমে না গিয়ে অর্ধশতরানের খুব কাছে পৌঁছে যান তিনি। কিন্তু আঠাশ নম্বর ওভারে আদিল রশিদের বলে পরিবর্ত ফীল্ডার জেমস ভিন্সকে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান। খানিক্ষণের মধ্যেই আদিল রশিদের গুগলিতে এলবিডব্লিউ হয়ে বিদায় নেন মার্কস স্টয়নিসও। মিচেল স্টার্ক স্মিথকে কিছুক্ষণ সঙ্গ দেওয়ার চেষ্টা করলেও ক্রমাগত উইকেট পড়তে থাকায় এক ওভার বাকি থাকতেই ২২৩ রানে অল আউট হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। বোলারদের মধ্যে ওকস আট ওভার বল করে ২০ রানে তিন উইকেট নেন। জবাব দিতে নেমে শুরু থেকেই তরতর করে এগিয়ে চলে ইংল্যান্ড। জনি বেয়রস্টো আর জেসন রয়কে অস্ট্রেলিয়ার নতুন বলের বোলাররা একেবারেই অসুবিধেয় ফেলতে পারেননি। ফলে একমুহূর্তের জন্যও মনে হয়নি প্রয়োজনীয় রান তুলতে ইংল্যান্ডকে বেগ পেতে হবে। দুই ওপেনারের হাতে বাউন্ডারি-ওভারবাউন্ডারি আসতে থাকে নিয়মিত, তবে স্টিভন স্মিথকে এক ওভারে রয় যেভাবে পরপর তিনটে ছয় মারেন, তা বেশ নৃশংস মনে হয়। এরপর আর কোনও সন্দেহ থাকে না যে এই ম্যাচ কোনওভাবেই আর অস্ট্রেলিয়ার দিকে ঘুরবে না।

আম্পায়ারের ভুলে রয় সেঞ্চুরি থেকে বঞ্চিত হলেও লক্ষ্যে পৌঁছতে ইংল্যান্ডের বেশি সময় লাগেনি। আগামী রবিবার ঐতিহাসিক লর্ডসে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলবে তারা। কে জিতবে, সেটা জানা যাবে সেদিনই, তবে আজ এটুকু নিশ্চিত হয়ে গেল যে ২০১৯এ আনকোরা নতুন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন পেতে চলেছে ক্রিকেট। আইসিসি।