টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে প্রথম টসটি জিতলেন মুমিনুল হক।

ইন্দোর টেস্টে উইকেটে ঘাসের ছোঁয়া আছে যথেষ্ট। শুরতে আর্দ্রতাও থাকতে পারে। তার পরও টস জিতে আগে ব্যাটিং নিয়েছে বাংলাদেশ। টিভিতে সুনীল গাভাস্কার বললেন, “এটি সাহসী সিদ্ধান্ত। শুরুর সময়টা দারুণ সতর্ক থাকতে হবে তাদের, কারণ ভারতের পেস আক্রমণ দুর্দান্ত।”

টসের সময় নিজের সিদ্ধান্তের পক্ষে ব্যাখ্যা দিয়ে মুমিনুল জানালেন, “উইকেট একটু শক্ত আছে, বল আসবে ব্যাটে। ম্যাচের পরের দিকে উইকেট ভাঙতে পারে।”

টসে হাসি মুমিনুলের

টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে প্রথম টসটি জিতলেন মুমিনুল হক। নতুন অধিনায়ক জানালেন, ব্যাটিং করবে বাংলাদেশ।

টসের সময় ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি জানালেন, টস জিতলে তারা আগে বোলিংই নিতেন।

অধিনায়ক মুমিনুলের শুরু

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট ও মুমিনুল হকের ক্যারিয়ারের আরেকটি অধ্যায়। টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে যাত্রা শুরু করছেন মুমিনুল।

বাংলাদেশের টেস্ট আঙিনায় ১৯ বছরে মুমিনুল ১১তম অধিনায়ক

নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান নিষিদ্ধ হওয়ার পর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মুমিনুলকে। টেস্ট সহ-অধিনায়ক যদিও ছিলেন মাহমুদউল্লাহ, গত ২ বছরে নানান সময়ে সাকিবের অনুপস্থিতিতে ৬টি টেস্টে বাংলাদেশকে নেতৃত্বও দিয়েছেন তিনি। তবে বিসিবি জানিয়েছিল, ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে তারা নেতৃত্ব দিয়েছে মুমিনুলকে।

ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিতই অধিনায়কত্ব করার অভিজ্ঞতা আছে মুমিনুলের। নানা সময়ে বিসিবি একাদশ ও বাংলাদেশ ‘এ’ দলকেও দিয়েছেন নেতৃত্ব। কিছুদিন আগে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের শ্রীলঙ্কা সফরেও মুমিনুলই ছিলেন অধিনায়ক।


বাংলাদেশের ওপর জেতার ‘চাপ নেই’

সাকিব আল হাসান-তামিম ইকবালবিহীন দলকে নিয়ে ভারতের বিপক্ষে নেই খুব একটা প্রত্যাশা। জিততে হবে-এমন কোনো চাপ দেখছেন না নতুন অধিনায়ক মুমিনুল হক।
তিনি বলেন,“আমি বারবারই বলছি, এটা আমাদের জন্য সুযোগ। আমরা সবাই সুযোগটা কাজে লাগানোর চেষ্টা করব। লক্ষ্য অবশ্যই ভালো খেলা। আমরা জেতার জন্যই মাঠে নামব। আপনি যখন যাদের বিপক্ষেই খেলেন, প্রতিপক্ষ যত শক্তিশালীই হোক, কেউ হারার জন্য মাঠে নামে না। সবাই সব সময় জেতার জন্যই মাঠে নামে। আমিও এভাবেই ভাবি। আমরা সব সময় সব ম্যাচে জেতার লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামি।”

‘সব চ্যালেঞ্জের জন্য প্রস্তুত বাংলাদেশ’

উইকেট বলছে বাংলাদেশের সামনে অপেক্ষা করছে উমেশ যাদব-মোহাম্মদ শামিদের আগুনে গোলা। মুমিনুল হক জানালেন, পেসারদের সঙ্গে রবিচন্দ্রন অশ্বিন-রবীন্দ্র জাদেজাদের স্পিনের জন্যও প্রস্তুত তার দল।

“ভারত এমন একটা দল যারা একেক দলকে একেক চ্যালেঞ্জ দিয়ে থাকে। আমাদের স্পিন দিয়ে চ্যালেঞ্জ দিতে পারে কিংবা পেস দিয়ে চ্যালেঞ্জ দিতে পারে। আমরা দুই দিক দিয়ে সেই চ্যালেঞ্জ নেওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছি। অবশ্যই চ্যালেঞ্জ হবে। সেটা নেওয়ার মনমানসিকতা সবারই আছে।”

টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে রয়েছে ভারতের চার জন। বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ২৫-এ আছে দেশটির ছয়জন। স্বাগতিকদের শক্তিমত্তায় ঘাবড়ে যাচ্ছেন না মুমিনুল।
“বিষয়টা হলো পুরোপুরি মানসিক। ব্যাপারটা হলো যে, যখন কোনো দলের বিপক্ষে খেলবেন, আনুষাঙ্গিক সব কিছু আপনার লক্ষ্য রাখতে হবে। কোন দিকে কে কতটা শক্তিশালী, কার ব্যাটিং কেমন, বোলিং কেমন সবই লক্ষ্য করতে হবে। আপনার মাইন্ড সেট কেমন হবে এটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, আমার কাছে ব্যাপারটা এমন মনে হয়।”
টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে যাত্রা শুরু

ইন্দোর টেস্ট দিয়েই শুরু হচ্ছে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের পথচলা। সম্ভাব্য কঠিনতম চ্যালেঞ্জ দিয়েই শুরু হচ্ছে টেস্ট শ্রেষ্ঠত্বের আসরে বাংলাদেশের যাত্রা। টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে যেমন শীর্ষে ভারত, তেমনি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপেও ৫ ম্যাচে ৫ জয়ে পূর্ণ ২৪০ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে ভারত।