বরিশাল নিউজ।। বরিশালে সুরভী-৮ লঞ্চে গার্মেন্টস কর্মী হত্যা ঘটনায় মো. সুমন নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে র‌্যাব। সুমনের নিজ এলাকা পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া থেকে রবিবার দিনগত রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। র‌্যাব-৮ কার্যালয়ে সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাব-৮ এর উপ-অধিনায়ক খান সজিবুল ইসলাম।

তিনি জানান, আটক সুমন সদরঘাটের একজন ফলবিক্রেতা। তিনি ঢাকা সদরঘাট ১নং গেইটের সামনে ৭/৮ বছর ধরে ব্যবসা করছেন। তার একটি ছেলে আছে। দীর্ঘদিন ধরে সুমন গার্মেন্টসকর্মী শারমিন আক্তার আঁখির সাথে মোবাইলে প্রেম করে আসছেন। আঁখির একটি মেয়ে রয়েছে। তারা দুজন বিবাহিত হলেও দুজনেই তা গোপন রাখেন।

গত ১৯ জুলাই রাতে সুরভী-৮ লঞ্চের একই কেবিনে বরিশালে আসছিলেন আঁখি ও সুমন। রাতের এক পর্যায়ে সুমন আঁখিকে কুপস্তাব দেয়। তাতে রাজি না হওয়ায় ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে শ্বাসরোধ হয়ে মারা যান গার্মেন্টস কর্মী শারমিন আক্তার আঁখি। পরে সকালে সুযোগ বুঝে পালিয়ে যান ঘাতক সুমন।

র‌্যাব আরো জানায়, আটক সুমন হত্যাকান্ডে নিজের সম্পৃক্ততা স্বীকার করেছে।
সুমনের বাড়ি পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার নকবুল্লা সিপাহীবাড়ী গ্রামে।
বরিশাল নিউজ/শাওন