বরিশালে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির ২০১৯-২০ অর্থ বছরের জন্য বিকল্প বাজেট-বরিশাল নিউজ

বরিশাল নিউজ।। বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির ২০১৯-২০ অর্থ বছরের জন্য বিকল্প বাজেট প্রস্তাব করেছে। তাদের প্রস্তাবিত এই বাজেটে ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য ১২ লাখ ৪০ হাজার ৯০ কোটি টাকার ছায়া বাজেট প্রস্তাব করা হয়। যা গত অর্থ বছরে সরকার প্রস্তাবিত পরিমানের চেয়ে ২.৬৭ গুন বেশী।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশ বিনির্মানে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতি এই বিকল্প বাজেট প্রস্তাব করে। এটি তাদের পঞ্চম বিকল্প বাজেট।
ঢাকা,বরিশাল,কুষ্টিয়া,কক্সবাজার,কুমিল্লা,খুলনাসহ দেশের ২৬ জেলায় শনিবার এক সাথে এই বিকল্প বাজেট পেশ করা হয়।

বরিশালে শনিবার সকাল ১১ টার পর বরিশাল শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির আজীবন সদস্য শিক্ষাবিদ প্রফেসর মো.হানিফের সভাপতিত্বে এই বিকল্প বাজেট প্রস্তাব পেশ করা হয়। সেখানে আরো অংশ নেন সমিতির সদস্য বিএম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর ননী গোপাল দাস,সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আবদুল মোতালেব হাওলাদার,বিএম কলেজের অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আসাদুজ্জামানসহ সমিতির বেশ কয়েকজন সদস্য।

বিকল্প বাজেটে খাতওয়ারি বরাদ্দে শিক্ষা ও প্রযুক্তিতে মোট ২ লাখ ৮৪ হাজার ৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখছে অর্থনীতি সমিতি। এরপর রয়েছে জনপ্রশাসনে ১,৭৭,৩৪০ কোটি টাকা, পরিবহন ও যোগাযোগে ১,৪৮,৭৫০ কোটি টাকা, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে ১,৪০,৬০০ কোটি টাকা, স্বাস্থ্য খাতে ৯৪,৪০০ কোটি টাকা, সামাজিক নিরাপত্তা ও কল্যাণ খাতে ৮০ লাখ ২৫০ কোটি টাকা।

কৃষিকে গুরুত্ব দিয়ে এক লাখ ভূমিহীন পরিবারের মধ্যে কমপক্ষে ২ লাখ বিঘা খাস জমি বন্দোবস্ত এবং ২০ হাজার জলাহীন প্রকৃত মৎস্যজীবী পরিবারের মধ্যে কমপক্ষে ৫০ হাজার বিঘা খাস জলাশয় বন্দোবস্ত দেওয়ার সুপারিশ করেছে সমিতি।

ভূমিহীন ও প্রান্তিক কৃষকদের জন্য সুদবিহীন ঋণ ও বীমার ব্যবস্থার পাশাপাশি চলতি বোরো মৌসুমে সঙ্কটে পড়া কৃষকদের ধানের ন্যায্যমূল্য পাওয়া নিশ্চিতের দাবিও জানিয়েছে তারা।

নারীর উন্নয়ন ও ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে দরিদ্র নারীদের সরকারিভাবে ক্ষুদ্র-অনুদান, প্রশিক্ষণ, গার্মেন্টসসহ কর্মজীবী নারীদের আবাসন ও ডে-কেয়ার সেন্টার স্থাপন, একশভাগ নিরাপদ প্রসব নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট বরাদ্দ ৪ গুণ বাড়ানো, ক্রীড়া খাতে নারীদের জন্য বরাদ্দ ৪ গুণ বাড়ানো, মাধ্যমিক স্কুলে মেয়েদের বিজ্ঞান শিক্ষায় বরাদ্দ ৩ গুণ বাড়ানো এবং নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে বরাদ্দ ৩০ গুণ বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে অর্থনীতি সমিতি।
২ লাখ ৮৪ হাজার টাকা ঘাটতির এই বিকল্প বাজেটে অর্থায়নে কোনো বৈদেশিক ঋণের প্রয়োজন হবে না বলে দাবি করা হয়।

আগামী ৩ বছরের মধ্যে কমপক্ষে ৫ লাখ ভ্যাট লাইসেন্সধারীকে ভ্যাটের আওতায় আনার প্রস্তাব করেছে অর্থনীতি সমিতি।
সমিতি জানায় “এনবিআর ও পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্য মতে বাংলাদেশের ভ্যাট লাইসেন্সধারীর সংখ্যা প্রায় ৯ লাখ। কিন্তু ১ লাখ লাইসেন্সধারীর কাছ থেকে বর্তমানে ভ্যাট আদায় হয়।”এই প্রসঙ্গে সহযোগী অধ্যাপক আকতারুজ্জামন বলেন,ইউনিয়ন পর্যায়েও ট্যাক্স অফিস স্থাপন করতে হবে। ট্যাক্স কালচার গড়ে তোলার জন্য পরিবারের সদস্য প্রতি এক টাকা করে ট্যাক্স দেওয়ার কথা বলেন তিনি।
ঢাকার সিরডাপ মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে অর্থনীতি সমিতির পক্ষ থেকে ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য ছায়া বাজেট প্রস্তাব করেন সমিতির সভাপতি আবুল বারাকাত।
বরিশাল নিউজ/এমএম হাসান