বরিশালের করমজা গ্রামে সৌদি ফল সাম্মাম-বরিশাল নিউজ

বরিশাল নিউজ।। বরিশালে নতুন জাতের ফসল ফলাতে আগ্রহী কৃষক গিয়াসউদ্দিন লিটু এবার সৌদি ফল সাম্মাম উৎপাদন করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। ক্রেতারা তার বাড়ী গিয়ে ২০০ টাকা কেজি দরে কিনছেন সাম্মাম। এই সাম্মাম খেতে অনেকটা কাচা-পাকা পেপের মতো। আর গ্রাণ হালকা ফুটের ঘ্রাণের মতো। সাম্মালে রং তিনটি।

নগরীর কাশিপুর এলাকায় করমজা গ্রামে লিটুর ৯০ শতাংশ জমি আছে। রসখানে তিনি তে সারা বছর কোন না কোন নতুন জাতের ফল কিংবা ফুল আবাদ করেন । তাই নতুন জাত পেলেই পরিশ্রমী ও উৎসাহী এই কৃষকের খোঁজ পরে কৃষি বিভাগে।

কৃষক গিয়াসউদ্দিন লিটু এবার ৫০ শতাংশ জমিতে সাম্মাম করেছেন। খুচরা ২০০ টাকা করে তার বাড়ী বয়ে সাম্মাম কিনছেন ক্রেতারা। লিটুর ছেলে জয় কৃষি ডিপ্লোমা বিষয় নিয়ে পড়াশুনা করছেন। তারও আগ্রহ জমেঝে বাবার কৃষি কাজে। জয় বলেন,হাইব্রিড মেলন রিয়া নামের সৌদি সাম্মামে পরিশ্রম কম,ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া নেই। সামান্য সার আর কীটনাশক হলেই চলে। তাই লাভ বেশী।

                                             বরিশালের গ্রামে সৌদি ফল সাম্মাম-বরিশাল নিউজ

বরিশাল মহানগর কৃষি কর্মকর্তা ফাহিমা হক বলেন, লিটুর বৈশিষ্ট হচ্ছে সে সব সময়ই নতুনের প্রতি আগ্রহী। অফসিজন তরমুজ করেও লিটু অনেক লাভবান হয়েছেন বলেন ফাহিমা।

বরিশাল কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা আবদুল ওয়াদুদ বললেন,বরিশাল অঞ্চলে ফলের আবাদ কম । তাই ফলের ঘাটতি পূরণ করতে কৃষক লিটুর দেখাদেখি অন্যরা উদ্বুদ্ধ হবেন এই আশায় যুবকদের তারা প্রশিক্ষণ দিয়ে যাচ্ছে ।
বরিশাল নিউজ/স্টাফ রিপোর্টার