কৃষি তথ্য সার্ভিসের ‘আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠান-বরিশাল নিউজ

বরিশাল নিউজ।। কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের নায্যমূল্যে নিশ্চিত করতে কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ধান/চাল কেনার লক্ষ্যে কৃষক তালিকা করার নির্দেশ এসেছে মন্ত্রণালয় থেকে।
বরিশালে সাংবাদিকদের নিয়ে ‘আধুনিক কৃষি প্রযুক্তি ব্যবহার’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে এ কথা জানিয়েছেন বরিশাল আঞ্চলিক কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মো. সাইনুর আজম খান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে তিনি ধানের সংগ্রহ মূল্য বাড়ানোর যৌত্তিকতা তুলে ধরে বলেন, এখন মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বেড়েছে। শ্রমিকের মজুরি বেড়েছে। নায্যমূল্যে নিশ্চিতের জন্য উৎপাদন খরচও কমানো দরকার বলেন তিনি। এজন্য স্বল্প খরচে উৎপাদনের প্রযুক্তি আবিস্কারের জন্য বৈজ্ঞানিকদের প্রতি আহবান জানান প্রধান অতিথি। তিনি আরো বলেন মধ্যস্বত্বভোগীদের হাত থেকে কৃষকদের রক্ষায় তাদের কাছ থেকে পণ্য কেনার চিন্তাভাবনা করছে সরকার। এজন্য উদ্বৃত্ত ফসল থাকে এমন কৃষকের তালিকা তৈরী করার নির্দেশনা দিয়েছে মন্ত্রণালয়।

নগরীর জীবনানন্দ সড়কের কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কার্যালয়ের প্রশক্ষণ কক্ষে শনিবার এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করে কৃষি তথ্য সার্ভিস আঞ্চলিক কার্যালয়।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক আবদুল অদুদ খান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বরিশাল ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. আলমগীর হোসেন, বরিশাল কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মুহাম্মদ সামসুল আলম এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. তৌফিকুল আলম।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বলেন, ১৯৭১ সালের তুলনায় দেশে খাদ্য উৎপাদন তিনগুন বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে এখন এসডিজির গোল অজর্নের লক্ষ্যে কাজ করছে কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ।

অনুষ্ঠানে আধুনিক কৃষি প্রযুক্তির বিষয়ে সাংবাদিকদের অবহিত করা হয় এবং তথ্যগুলো মাঠ পর্যায়ের কৃষকদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য সাংবাদিকের প্রতি আহ্বান জানান বরিশাল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মো. সাইনুর আজম খান।
বরিশাল নিউজ/এমএম হাসান