বরিশাল নিউজ।। বরিশালে সাতদিন ব্যাপী করমেলার দ্বিতীয় দিনে বরিশাল কর অঞ্চলে ৬১ লাখ টাকা কর আদায় হয়েছে। প্রথম দিনে কর আদায় হয়েছে ৪৯ লাখ টাকা।
বরিশাল ছাড়া অন্য পাঁচ জেলায় মেলা হচ্ছে চার দিনব্যাপী। এরমধ্যে বিভাগের পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া, গলাচিপা, পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ, ভোলা জেলার লালমোহন ও ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলায় দুই দিনব্যাপী কর মেলার আয়োজন করেছে বরিশাল কর অঞ্চল।

বরিশাল কর অঞ্চলের উপ-কর কমিশনার (প্রশাসন) মো. আবুল কালাম আজাদ জানান, দ্বিতীয় দিনে বরিশালে ৫৩ লাখ ৭৩ হাজার ৫৪৩ টাকা কর আদায় করা হয়েছে। সে হিসেবে প্রথম দিনের থেকে প্রায় পাঁচ লাখ টাকা বেশি কর আদায় করা হয়েছে।

পাশাপাশি দ্বিতীয় দিনে রিটার্ন জমা দিয়েছেন এক হাজার ১২৮ জন করদাতা। নতুন ই-টিআইএন গ্রহণ করেছেন ১৯ জন। আর সেবাগ্রহণ করেছেন তিন হাজার ২২৭ জন।

এছাড়া বরিশাল কর অঞ্চলের আওতায় ঝালকাঠি জেলায় মেলার প্রথম দিন শুক্রবারে পাঁচ লাখ চার হাজার ৩৯১ টাকা কর আদায় করা হয়েছে। পাশাপাশি রিটার্ন জমা দিয়েছেন ১৮৪ জন করদাতা। নতুন ই-টিআইএন গ্রহণ করেছেন দুই জন। আর সেবাগ্রহণ করেছেন ৪৪৮ জন।

অপরদিকে, পটুয়াখালী জেলায় মেলার প্রথম দিন শুক্রবারে দুই লাখ ৭৮ হাজার ৭৯০ টাকার কর আদায় করা হয়েছে। পাশাপাশি রিটার্ন জমা দিয়েছেন ৩৬৯ জন করদাতা। নতুন ই-টিআইএন গ্রহণ করেছেন নয়জন। আর সেবাগ্রহণ করেছেন ৫৫০ জন।

সেই হিসেবে গোটা বরিশাল কর অঞ্চলে শুক্রবারে ৬১ লাখ ৫৬ হাজার ৭২৪ টাকা কর আদায় করা হয়েছে। পাশাপাশি রিটার্ন জমা দিয়েছেন এক হাজার ৬৮১ জন করদাতা। নতুন ই-টিআইএন গ্রহণ করেছেন ৩০ জন। আর সেবাগ্রহণ করেছেন চার হাজার ২২৫ জন।

প্রথম দিনে ৪৯ লাখ টাকার কর আদায়

নগরীর বরিশাল ক্লাবের অমৃতলাল দে মিলনায়তনে সাত দিনব্যাপী কর মেলার প্রথম দিনে ৪৯ লাখ ৩২ হাজার ৩২৯ টাকার আয়কর আদায় করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) মেলার প্রথম দিনে আয়কর দেওয়ার পাশাপাশি নানা বিষয়ে অবহিত হয়েছেন সেবা গ্রহীতারা।

যদিও গত বছরের প্রথম দিনের হিসাব অনুযায়ী, এবারের প্রথম দিনে প্রায় ৬ লাখ টাকা কম কর আদায় হয়েছে। তবে গত বছরের হিসেবে প্রথম দিনে প্রায় ২ হাজার জনের বেশি এবার সেবাগ্রহণ করেছেন।

বরিশাল কর অঞ্চলের উপ-কর কমিশনার (প্রশাসন) মো. আবুল কালাম আজাদ জানান, এবার বরিশালে মেলার প্রথম দিনে ৪৯ লাখ ৩২ হাজার ৩২৯ টাকার আয়কর আদায় করা হয়েছে। পাশাপাশি রিটার্ন জমা দিয়েছেন ১ হাজার ৩০৮ জন করদাতা। নতুন ই-টিআইএন গ্রহণ করেছেন ৫১ জন। আর সেবাগ্রহণ করেছেন ৫ হাজার ২২৩৭ জন।

গত বছর প্রথম দিনে ৫৫ লাখ ৫৪ হাজার ৩৫৬ টাকা কর আদায় করা হয়েছিল। পাশাপাশি রিটার্ন জমা দিয়েছিলেন ১ হাজার ৩৩৮ জন করদাতা। নতুন ই-টিআইএনের মাধ্যমে করদাতা হয়েছিলেন ৮৫ জন। সেবাগ্রহণ করেছিলেন ৩ হাজার ২০৮ জন।

১৪ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া বরিশাল কর অঞ্চলের এ মেলা আগামী ২০ নভেম্বর শেষ হবে। নির্ধারিত স্থানে অনুষ্ঠিত এ মেলা প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে। মেলায় কর প্রদানকারীদের জন্য প্রয়োজনীয় বুথের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
বরিশাল নিউজ/স্টাফ রিপোর্টার