বরিশাল নিউজ।। নগরীর ‘আইনশৃঙ্খলা আর পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা’ নিয়ে সমালোচনা-আত্মসমালোচনার ঝড় বয়ে যায় নগরভবনে। সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ নগর ভবনে বিষয়টি নিয়ে মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন বৃহস্পতিবার দুপুরে।
উন্মুক্ত সেই আলোচনায় পুলিশ, শেবাচিম হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এবং লঞ্চ মালিকদের সমালোচনায় প্রানবন্ত আলোচনায় মুখরিত হয়ে ওঠে।
সমালোচনাকারীদের সাথে একাত্ম হয়ে মেয়র বলেন,‘‘বিষয়গুলো আমার হাতে নাই। কিন’ জনগন গাইল দেয় মেয়ররে।’’
এসময় মালিকদের ক্ষোভের সুরে তিনি বলেন,‘‘না পারেন আমারে বলেন। দেখেন আমি পারি কিনা। কেমনে কথা শুনাইতে হয় আমি জানি।’’

ঈদ যাত্রীদের জন্য ফ্রি বাস

ঢাকা থেকে বরিশালে ফেরা লঞ্চ যাত্রীদের বাস টার্মিনালে পৌঁছে দেয়ার জন্য ১০টি বাস দিয়েছেন সিটি মেয়র । বাসগুলো লঞ্চঘাট থেকে রম্নপাতলী বাস টার্মিনাল এবং নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল পর্যন্ত যাত্রী পরিবহন করবে। এই বাসের যাত্রীদের কাছ থেকে কোন ভাড়া নেওয়া হবে না।
বাসগুলোর মালিক তরুন ব্যবসায়ী শাওন। তিনি ঈদে যাত্রীদের সুবিধার জন্য মেয়রকে সহযোগিতা করতে এই বাসগুলো ব্যবহারের অনুরোধ জানান।
মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, লঞ্চগুলো রাতে যাত্রীদের ঘাটে নামিয়ে দিয়ে যায়। তখন লঞ্চ স্টেশনে মাহেন্দ্র বা থ্রি হুইলার থাকে না। এরফলে অন্য জেলা বা উপজেলায় যাদের বাড়ী তাদের জন্য ঘরে ফেরা খুবই কষ্টকর হয়ে দাড়ায়। ঈদুল ফিতরে যাত্রীদের এই করম্নন অবস্থা দেখে এবার ফ্রি বাসের ব্যবস্থার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে জানান মেয়র।

মেয়রের বিচার হবে সদর রোডে

বরিশাল নগরীতে গত এক বছরে গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলো দারুণ উন্নতি করা হয়েছে। দৃষ্টিনন্দন রোড ডিভাইডার দিয়ে যানজট নিরসনেরও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। করা হয়েছে ডিজিটাল থ্রিডি জেব্রা ক্রসিং। কিন্তু নগরীর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন সড়ক বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সড়ক অর্থাৎ পুরানো সদর রোড, ফজলুল হক এ্যাভিনিউ, চক বাজার সড়কের যারজট দূর হচ্ছেনা কিছুতেই।
সাংবাদিক মুরাদ আহমেদ মেয়রকে বলেন, কাকলীর মোড়ে পুলিশ বক্স রয়েছে,তারপরেও আধাঘন্টা দাড়িয়ে থাকতে হয়। যানজটে নাকাল নগরবাসীর এই দূরাবস্থার খবর আমাদের করতেই হবে। এই দূরাবস্থা দূর করতে আপনি কী করলেন তার বিচার হবে সদর রোডে। মুরাদ আহমেদ মেয়রকে টহলে থাকার অনুরোধ করে বলেন, সবাই কিতাবের কথা বলে-কাজ করে না।
মেয়র এ সময় বলেন, ট্রাফিক ব্যবস্থা সিটির অধীনে নয়, তবুও ট্রাফিক পুলিশকে সাথে নিয়ে যানজট দূর করার চেষ্টা করা হবে। এসময় ট্রাফিক পুলিশের ডিসি খায়রুল আলম বলেন, স্কুলগুলো খোলা থাকায় তাদের যানজট সামলাতে বেগ পেতে হয়েছে। বৃহস্পতিবার থেকে স্কুল বন্ধ হওয়ায় তাদের কাজের সুবিধা হবে। ঈদের সময় কারো সাথে খারাপ ব্যবহার করতে চাই না জানিয়ে তিনি বলেন, নির্দিষ্ট স্থানে গাড়ী পার্কিং করম্নন। সাংবাদিকদেরও নির্দিষ্টস্থানে মোটর সাইকেল পার্কিং করার অনুরোধ করে তিনি বলেন অনিয়ম হলে সবার বিরম্নদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ক্লিক শেষ, ক্লিনিং শেষ

কুরবানিতে পশু জবাই করার পর পরিচ্ছন্নতা অভিযানের উদ্বোধন করা হয় ঘটা করে। এসব খবর প্রচার করতে টিভি-পেপার এর ক্যামেরাও ঘটা করে ছবি-ভিডিও তুলে থাকেন। কিন্তু তারপর সেই বর্জ্য আর সহসা পরিস্কার হয় না। সাংবাদিক রাহাত খান মেয়রের কাছে জানতে চান -ক্লিক শেষ, ক্লিনিং শেষ অবস্থা এবার যেন না হয় সেদিকে নজরদারি করা হবে কী না?

আলোচনায় অংশ নেন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক, লঞ্চ মালিক সমিতির সহ-সভাপতি, উপ-পুলিশ কমিশানার (সদর দপ্তর), রুপাতলী বাস-মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক, সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সভাপতিসহ আরো অনেকে।

বরিশাল নিউজ/এমএম হাসান