বরিশাল নিউজ।। বরিশাল জেলা পরিষদের দারোয়ন-কাম-কেয়ারটেকার আব্দুর রহিমকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে পরিষদ সদস্য মো. জিল্লুর রহমান মিয়া ও মো. মনোয়ারুল ইসলাম অলির বিরুদ্ধে। গত ১৭ জুলাই ঘটে যাওয়া ওই ঘটনার জেরে কর্মবিরতীর প্রচ্ছন্ন হুশিয়ারী দিয়েছে চতুর্থ শ্রেণি কর্মচারীরা।
এই ঘটনায় বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশ কমিশনার, চেয়ারম্যান, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও কোতয়ালী মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
জানাগেছে, জেলা পরিষদের সদস্য মো. জিল্লুর রহমান মিয়া ও মো. মনোয়ারুল ইসলাম অলি ৪র্থ শ্রেণী কর্মচারী রহিমের সাথে রুক্ষ আচরণ করেন । এসময় তারা রহিমকে মারধরও করেন।

অভিযোগে বলা হয়, ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারী রহিমের সাথে রুক্ষ আচরণ এবং মারধর করায় তিনি সামাজিকভাবে হেয় প্রতীপন্ন হয়েছেন। ইতিপুর্বে বেশ কয়েকবার রহিমকে মারধর করার জন্য উদ্যত হয় ও বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখায় যা বরিশাল জেলা পরিষদের সিসি ক্যামেরায় ধারণ করা আছে।
অভিযোগে আরো উল্লেখ, খারাপ আচরণের প্রতিবাদ করায় ওই দুই সদস্য ক্ষেপেছিলেন রহিমের ওপর। এদিকে ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীরা জানান, এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার না হলে তারা কর্মবিরতিতে যাবেন।

এ বিষয়ে সদস্য মো. মনোয়ারুল ইসলাম অলি মুঠো ফোনে বলেন, ”সামান্য একটি কলম ধরার ঘটনাকে কেন্দ্র করে রহিম জিল্লুরের সাথে চরম অশোভন আচরন করে।
এনিয়ে রহিমের সাথে ‘একটু কথাকাটাকাটি’ হয় জিল্লুরের। যা তাৎক্ষনিকভাবে নিষ্পত্তি করা হয়। এঘটনা নিয়ে এখন চেয়ারম্যান ও নির্বাহী কর্মকর্তা পিছন থেকে কলকাঠি পরিবেশকে ঘোলাটে করার চেষ্টা করছে।”
”কয়েকদিন আগে আমরা সদস্যরা জেলা পরিষদের পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য চেয়ারম্যানকে বললে তিনি সদস্যদের কথা সঠিকভাবে মুল্যায়ন না করার কারনে আমরা সদস্য সে সভা বয়কট করি। এবং সে থেকেই চেয়ারম্যান সদস্যদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে পিছন থেকে কলকাঠি নেড়ে জেলা পরিষদের পারবেশ ঘোলাটে করছেন।”-যোগ করেন অলি।

এ ব্যাপারে বরিশাল জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মানিকহার রহমান বলেন, ”আমার অফিসের ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারীকে সদস্যরা মারধর করেছে যা সিসি ক্যামেরায় ধারণ করা আছে। আমরা আইনগতভাবে এগুচ্ছি। যাতে ভবিষ্যতে এরকমের অনাকাঙ্খিত ঘটনা আর জেলা পরিষদের না ঘটে। বিষয়টি বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশ কমিশনার, কোতয়ালি মডেল থানাকে অভিহত করা হয়েছে।”
এ ব্যাপারে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মইদুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা যায়নি।

বরিশাল নিউজ/শামীম