ফণীর ছোবলে ৩ জেলায় ৪ জনের মৃত্যু

বরিশাল নিউজ ডেস্ক।। প্রশাসনের অনেক চেষ্টার পরেও প্রত্যন্ত এলাকায় অনেকেই তাদের ঘর ছেড়ে আশ্রয় কেন্দ্রে যাননি। এদেরই একজন ভোলা সদর উপজেলার দক্ষিণ দিঘলদী গ্রামের রানু বিবি,৫৫। বেরীবাধের পাশে বাড়ী তার। রাত তিনটার দিকে ঘর চাপা পরে মারা যান রানু বিবি। সকালে তাকে দেখতে গিয়েছিলেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা।
এছাড়াও ভোলায় অর্ধশতাধিক ঘর চাপা পরে ৪০-৫০ জন আহত হয়েছেন।

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার চরদোয়ানি ইউনিয়নের দক্ষিণ চরদোয়ানি গ্রামে ঘরের উপর গাছ পরে মারা গেছেন দাদী-নাতি দুইজন। দাদী নুরজাহানের বয়স ০,আর নাতি জাহিদুরের বয়স নয় বছর। তার আড়াইটার দিকে এই দুর্যোগ নেমে আনস তাদের উপর।
নিহত এই পরিবারকে তাৎক্ষণিক ২০ হাজার টাকা অর্থ সহায়তা দেওয়ার জন্য স্ব স্ব জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ দিয়েছেন বিভাগীয় কমিশনার রাম চন্দ্র দাস।
এদিকে পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় শুক্রবার দুপুরে গাছের চাপায় মারা গেছেন মোটর সাইকেল চালক । হাবিব মুনসী নামে ওই চালক দুই যাত্রী নিয়ে যাচ্ছিলেন মহিপুর। তাদের দ্রুত উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে রাতে হাবিব মুন্সীর মৃত্যু হয়। যাত্রী দুইজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীণ।
বরিশাল নিউজ/এমএম হাসান