বরিশাল নিউজ।। বরিশাল নগরীতে এবার খুব কম সময়ের মধ্যে কুরবানির বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে। এজন্য কুরবানিদাতা এবং পরিচ্ছন্ন কর্মী সবাই ছিলেন তৎপর। সিটি মেয়রের তদারকির কারণে তার কর্মীরা এবার আর গাফেলতি করার সাহস করেননি।
বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে পশু কুরবানির জন্য ১৪২টি স্থান নির্ধারণ করে দেয়া হলেও রাস্তায় রাস্তায় কুরবানি করেছেন বেশীরভাগ কুরবানিদাতা। বৃষ্টির কারনে দ্রুত কুরবানি দেওয়ার জন্য নির্ধারিত স্থানে যাওয়ার সময় হবে না বলে জানান তারা। তবে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারেও তারা আগের চেয়ে সর্তক ছিলেন। রাস্তায় জবাই দেওয়ার পরপরই পশুগুলোক দ্রুত টুকরো করে ভবনের নিচের তলায় অথবা ছাদে নিয়ে বাকি কাজ করতে দেখা গেছে অনেককে। শুধু তাই নয়,তারা রাস্তার রক্তও পরিস্কার করেছেন দ্রুত।

সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মীরাও ছিলেন তৎপর। এজন্য ৩০ টি ওয়ার্ড থেকে কুরবানির বর্জ্য অপসারণের জন্য নিয়মিত তিনশত পরিচ্ছন্নতা কর্মীর পাশাপাশি আরো ছয়শত কর্মী নিয়োগ করা হয়। এছাড়াও ব্যবহার করা হয়েছে ৩৬টি যানবাহন।পরিস্কারের পরপরই ব্লিচিং পাউডার ছিটিয়ে দেওয়া হয় পশু কুরবানি স্থলে।

 এরফলে মাত্র ছয় ঘন্টার মধ্যে নগরী থেকে বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে বলে দাবি করেন সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। সিটি মেয়র কুরবানির আগেরদিন নগরী থেকে ৮ ঘন্টার মধ্যে বর্জ্য অপসরণের ঘোষণা দিয়েছিলেন ।
বরিশাল নিউজ/এমএম হাসান