পিরোজপুর সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজের সহকারী অধ্যাপক আব্দুস সালামের (৫৮) ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পিরোজপুর পৌরসভার রাজারহাট এলাকার ভাড়া বাসা থেকে বুধবার দুপুরের দিকে তার মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত আব্দুস সালাম ওই কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ছিলেন। তার বাড়ি বরগুনার সদর উপজেলায়।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আব্দুস সালাম এক বছর ধরে রাজারহাট এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় একা বসবাস করছিলেন। মঙ্গলবার (৩ জুলাই) রাত সাড়ে ৯টার দিকে তিনি বাসায় ফিরেন। রাতের কোনো এক সময় গলায় দড়ি দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন ওই শিক্ষক।
পরদিন বেলা ১১টার দিকে সহকর্মীরা তাকে কলেজে না পেয়ে মোবাইল ফোনে কল দেন। তিনি ফোন রিসিভ না করায় বাসায় গিয়ে খোঁজ নেন। এসময় কোনো সাড়া-শব্দ না পেয়ে তারা থানায় খবর দেন। পরে পুলিশ এসে দরজা ভেঙে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে।
পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্ল্যা আজাদ হোসেন ও পিরোজপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহম্মেদ মাইনুল হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আহম্মেদ মাইনুল হাসান সাংবাদিকদের বলেন, আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পিরোজপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে।