বাবুগঞ্জে সুগন্ধা নদী ভাঙনে বিলীন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক-বরিশাল নিউজ

বাবুগঞ্জ নিউজ।। বাবুগঞ্জে আকস্মিক নদী ভাঙনে বিলীন হয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও সরকারি আবুল কালাম ডিগ্রী কলেজের প্রধান সড়কটি। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার নতুন হাট-রাকুদিয়া সড়কে কলেজের সম্মুখের প্রায় দেড়শ ফুট কার্পেটিং রাস্তা দেবে গিয়ে নদীবক্ষে আছড়ে পড়েছে। ফলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সাথে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়েছে গেছে। এছাড়াও সরকারি আবুল কালাম ডিগ্রী কলেজেসহ দেহেরগতি ও কেদারপুর ইউনিয়নের সঙ্গে উপজেলা সদরের সড়কপথে যোগাযোগের প্রধান রাস্তাটি নদীতে ভেঙে পড়ায় চরম বিপাকে পড়েছেন দুই ইউনিয়নের মানুষ। চলতি শুকনো মৌসুমে এমন আকস্মিক নদীভাঙনে হতবাক এলাকাবাসী। অসময়ের এমন ভাঙন দেখে বরিশালের পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী নিজেও বিস্ময় প্রকাশ করেছেন।

 সরকারি আবুল কালাম ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক নুরুন্নবী রাসেল জানান, মঙ্গলবার রাতের কোনো এক সময়ে কলেজের অদূরের ওই কার্পেটিং সড়কের বিশাল অংশ সুগন্ধা নদীতে ভেঙে পড়ে। দ্রুত বিকল্প সড়ক নির্মাণ ও ভাঙন রোধ করা না হলে কলেজের আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষা এবং উপজেলা হাসপাতালের চিকিৎসা কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাবে।

 পানি উন্নয়ন বোর্ড ওই ভাঙন প্রতিরোধে কয়েক দফায় নদীতে জিও ব্যাগ ফেললেও তাতে কাজের কাজ হয়নি কিছুই। মাত্র এক রাতের ব্যবধানে ওই জিও ব্যাগসহ কার্পেটিং রাস্তার প্রায় দেড়শো ফুট নদীতে বিলীন হয়েছে। এখনো বাকি রাস্তার মধ্যে প্রায় ৮০ ফুট দৈর্ঘ্যের আরেকটি বিশাল ফাঁটল রয়েছে, যা যেকোনো মুহূর্তে ভেঙে পড়বে নদীতে।

এদিকে নদী ভাঙনের খবর পেয়ে বুধবার সকালে পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী নেত্বত্বে বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের একটি প্রতিনিধি দল ভাঙন কবলিত রাকুদিয়া এলাকা পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবু সাঈদ এ প্রতিবেদককে বলেন, অসময়ে এমন ভাঙনে আমরা বিস্মিত। এটা নদী ভাঙনের মৌসুম নয়। ভাঙন পয়েন্টে ঘূর্ণিস্রোত এবং গভীরতা বেশি থাকায় নদীর তলদেশে হয়তো এতটা ড্যামেজ হয়েছে, যা সত্যিই আশ্চর্যজনক একটি ঘটনা। তবে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে ভাঙন রোধে আমরা দ্রুত আপদকালীন কিছু পদক্ষেপ নেবো। কিন্তু ওই ভাঙন সম্পূর্নরূপে প্রতিরোধ করতে হলে প্রয়োজন নদী শাসনসহ স্থায়ী প্রতিরোধ ব্যবস্থা।
বরিশাল নিউজ/মুন্না