ভোলার লালমোহনে বিছানায় আগুন ;নিহত ২

বরিশাল নিউজ।। ভোলার লালমোহন উপজেলার চরভুতা এলাকায় আগুনে পুড়ে দুই জন নিহত হয়েছেন। এরা হলেন নববধু সুরমা বেগম (২৫) এবং তার বড় বোন আংকুরা বেগমের মেয়ে খাদিজা আক্তার (১৫)। এছাড়া দ্বগ্ধ আংকুরা বেগমকে (৩০) আশংকাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, বোরহানউদ্দিনের দেউলার মো. রফিকের সাথে চার মাস আগে লালমোহনের চরভুতা গ্রামের খাদিজা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর পরই রফিক তার স্ত্রীকে শ্বশুড় বাড়ি রেখে যায়। স্ত্রীর খোঁজখবর এবং ভরণ-পোষন না দেওয়ায় সুরমার বাবা স্থানীয় একটি এনজিওতে অভিযোগ করেন। এনজিও কর্তৃ্পক্ষ রফিককে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে রফিক আগুন দিয়ে হত্যাকান্ড সংঘটিত করতে পারে বলে সন্দেহ করছেন নিহতের পরিবারের সদস্যরা।
দুর্ঘটনার সময় সুরমা তার বোনের বাড়ীতে ছিল। লালমোহন থানার ওসি খাইরুল ইসলাম বরিশাল নিউজকে বলেছেন, ঘুমন্ত সুরমার বিছানায় আগুন দেওয়া হয়েছিল। লেপ তোষক পুড়ে সুরমার মৃত্যু ঘটে। সেই বাড়ির সিদ কাটা পাওয়া গেছে। পুলিশের ধারণা সিদ কেটে কেই ঘরে ঢুকে আগুন দিয়েছে।

এদিকে অগ্নিসংযোগের পরপরই ঘটনালে সুরমার মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা অপর দুই দ্বগ্ধকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। আজ শনিবার বেলা ১২টার দিকে হাসপাতালে ভর্তির পরপরই আংকুরার মেয়ে খাদিজার মৃত্যু হয়। আংকুরার অবস্থাও আশংকাজনক বলে জানিয়েছেন বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. এমএ আজাদ সজল।
বরিশাল নিউজ/এমএম হাসান